মৃত্যু ভয়ে খালেদা জিয়া তার আসল জন্মদিনের কথা স্বীকার করলো!
মৃত্যু ভয়ে খালেদা জিয়া তার আসল জন্মদিনের কথা স্বীকার করলো!
মতামত updated 11 months ago

মৃত্যু ভয়ে খালেদা জিয়া তার আসল জন্মদিনের কথা স্বীকার করলো!

জাতিসংঘ কে দিয়ে খালেদা জিয়ার ডিএনএ টেস্ট করে তার সঠিক জন্মদিন নির্ধারণ করা উচিত, যাতে মিথ্যা জন্মদিন বানিয়ে উৎসব না করতে পারে।

১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার জন্মদিন নয়, তারপরও জন্মদিন হিসেবে কেক কেটে আনন্দ উল্লাস করত। যেদিন আমাদের চোখের পানি পড়ে, মিথ্যা জন্মদিন বানিয়ে সেদিন সে উৎসব করত। শুধুমাত্র আমাদের আঘাত দেওয়ার জন্য এটা করত।

খালেদা জিয়ার ৬ টি জন্মদিন ব্যবহারের কথা উল্লেখ রয়েছে। তাঁর এসএসসির নম্বরপত্রে জন্মতারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬। ১৯৯১ সালে বেগম জিয়া প্রধানমন্ত্রী হবার পর তৎকালীন সরকারি পত্রিকা দৈনিক বাংলাতে তাঁর জীবনী প্রকাশিত হয়েছিল। সেখানে লেখা ছিল জন্মদিন ১৯ আগস্ট ১৯৪৫। বিবাহ নিবন্ধনে জন্মতারিখ লেখা রয়েছে ৪ আগস্ট ১৯৪৪। ২০০১ সালে নেওয়া তাঁর মেশিন রিডেবল পাসপোর্টে জন্মতারিখ ৫ আগস্ট ১৯৪৬। চলতি বছরের মে মাসে তাঁর করোনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে জন্মতারিখ লেখা আছে ৮ মে ১৯৪৬। এ ছাড়া জাতীয় শোক দিবস ১৫ আগস্ট তিনি জন্মদিন পালন করেন।

মানবতা কোথায়,, একজন মানুষের ৬ বার জন্ম হয়।
এটা কি দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী কাছ থেকে আশা করা যায়...!!
'ভুয়া জন্মদিন পালনের নামে তামাশা করেন খালেদা জিয়া'

কিন্তু করোনা টিকে দেওয়ার সময় -
মৃত্যু ভয়ে খালেদা জিয়া তার আসল জন্মদিনের কথা স্বীকার করলো!
ফেসবুকে একটি হাসপাতালে করা কোভিড পরীক্ষার ফলাফলের নথির একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। ওই নথিতে দেখা যাচ্ছে, পরীক্ষার ফলাফল এসেছে "Negative"। Test Report নামের ওই নথিতে রোগীর নাম (Patient Name) এর ঘরে লেখা রয়েছে "BEGUM KHALEDA ZIA".

নথিতে উল্লেখ রয়েছে "Invoice No: V2105006428", "LAB No: 12105297088" এবং "Report No: 12105958358". এতে আরও দেখা যাচ্ছে, খালেদা জিয়ার বয়স লেখা রয়েছে ৭৫ বছর ((75 Y)। জন্ম তারিখের ঘরে লেখা রয়েছে, "08 MAY 1946"।

জাতিসংঘ কে দিয়ে খালেদা জিয়ার ডিএনএ টেস্ট করে তার সঠিক জন্মদিন নির্ধারণ করা উচিত, যাতে মিথ্যা জন্মদিন বানিয়ে উৎসব না করতে পারে।

0
0
0
0
0
0
0
0
0
0 Comments

Follow Us on Facebook